দ্বীনের নসীহত

ইসলামী আলোয় আলোকিত হোক জীবন

টেলিভিশন দেখে ইমামের অনুসরণ জায়েয নেই: ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ

সবারই রাজ্জাকের মতো ভুল ভাঙা উচিত মাও. ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ 1

জামায়াতের সবারই রাজ্জাকের মতো ভুল ভাঙা উচিত: মাও. ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়ার গ্র্যান্ড ইমাম ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেছেন, টেলিভিশন বা যে কোনো ভিডিওতে তারাবির নামাজ অনুকরণের সুযোগ নেই নবীজী এ ধরনের নামাজ নিজে পড়েননি।

পড়তে কাউকে উৎসাহিতও করেননি। টেলিভিশনে কোনো ইমামকে অনুসরণ করা বিভ্রান্তি ছাড়া আর কিছু নয়। দেশের দায়িত্বশীল মানুষদের প্রতি নবীজীকে অনুসরণের আহ্বান জানিয়ে আল্লামা মাসঊদ বলেন, নামাজের ক্ষেত্রে নবীজী, সাহাবায়ে কেরাম ও অলি আল্লাহদের নামাজের রীতি আমাদের অনুসরণ করতে হবে।

টেলিভিশন বা যে কোনো ভিডিও দেখে কোনো ইমামকে অনুসরণ করলে নামাজ ভঙ্গ হয়ে যাওয়ার কারণ পাওয়া যায়।

আল্লাহ তাআলা আমাদেরকে নবীজীর সুন্নাহ অনুসরণে নামাজ আদায়ের তাওফিক দিন। ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেছেন, মুসলিম সমাজে বিভ্রান্তি সৃষ্টির লক্ষ‌্যে কেউ কেউ নামাজে কোরআন মাজিদ দেখে পড়ার কথা বলছে।

এটা সম্পূর্ণ বিভ্রান্তি। যুগ যুগ ধরে চলে আসা নামাজে কোরআন মুখস্থ পড়ার রীতি এমনিই এমনিই আসেনি।

নবীজী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কখনোই নামাজে কোরআন দেখে পড়েননি। নতুন করে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করা মূর্খতা ছাড়া আর কিছু নয়।

বুখারী শরিফে রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, তোমরা সেভাবেই নামায পড় যেভাবে আমাকে নামায পড়তে দেখেছো।

২৮ এপ্রিল মঙ্গলবার সকালে আওয়ার ইসলামে পাঠানো এক বিবৃতিতে বাংলাদেশ জমিয়তুল উলামার চেয়ারম্যান ও ঐতিহাসিক শোলাকিয়ার গ্র্যান্ড ইমাম শাইখুল হাদিস ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ এসব কথা বলেন।

 


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •